বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের গ্রুপ পর্ব শেষে শীর্ষ রান সংগ্রাহকের তালিকায় সবার উপরে রয়েছেন রংপুর রাইডার্সের ব্যাটসম্যান রাইলি রুশো। সেরা পাঁচে আছেন বাংলাদেশের দুই ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবাল।

এখন পর্যন্ত গ্রুপ পর্বের সবগুলো ম্যাচ খেলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকান কিকেটার রাইলি রুশো। ১২ ম্যাচ খেলা এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের রান ৫১৪। পাঁচ অর্ধশতক এবং এক শতক রয়েছে প্রোটিয়া এই ব্যাটসম্যানের নামের পাশে। অপরাজিত ১০০ রানের ইনিংস তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ। ১৫১.১৭ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করে যাচ্ছেন রংপুরের নির্ভরযোগ্য এই ব্যাটসম্যান।

দ্বিতীয় অবস্থানটি চিটাগং ভাইকিংসের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের। গ্রুপ পর্বের ১২ ম্যাচ খেলে ৪১৮ রান সংগ্রহ করেছেন মুশফিক। ১৩৯.৩৩ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করে হাঁকিয়েছেন তিনটি অর্ধশতক। ৭৫ রানের ইনিংস তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ।

তৃতীয় স্থানটি সিলেট সিক্সার্সের বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরানের। এবারের বিপিএলে ১১ ম্যাচ খেলেছেন এই উইন্ডিজ ক্রিকেটার। ১৫৯.৯১ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করা এই ব্যাটসম্যানের রান সংখ্যা ৩৭৯। তিনটি অর্ধশতক আছে এই ক্যারিবীয়ান ক্রিকেটারের, আর অপরাজিত ৭৫ রানের ইনিংস তার সর্বোচ্চ।

শীর্ষ রান সংগ্রাহকের তালিকায় চতুর্থ স্থানটি রাজশাহী কিংসের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান লরি ইভান্সের। ১৩৭.৮০ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করে তিনি সংগ্রহ করেছেন ৩৩৯ রান। ১১ ম্যাচ খেলেছেন তিনি, দুইটি অর্ধশতক এবং একটি শতক রয়েছে তার নামের পাশে। অপরাজিত ১০৪ রানের ইনিংস ইভান্সের সর্বোচ্চ।

আসরের শুরুর দিকে ব্যাট হাতে ভালো ফর্মে না থাকলেও সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ব্যাট হাসতে শুরু করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবালের। গ্রুপ পর্ব শেষে শীর্ষ রান সংগ্রাহকের তালিকায় পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছেন তিনি। ১১২.৭৭ স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করে বিপিএলের এবারের আসরে ১২ ম্যাচ খেলা এই ব্যাটসম্যানের রান ৩০৯। কোন শতক না হাঁকালেও দুটি অর্ধশতক আছে তার নামের পাশে। ৭৩ রানের ইনিংস তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ।

Please follow and like us:
0